নালিতাবাড়িনির্বাচিতশেরপুর জেলা

নালিতাবাড়ীতে ৭০ বছর বয়সী বৃদ্ধ কর্তৃক গৃহবধূকে উত্যক্ত করায় সংঘর্ষে নারীসহ আহত-৫

মো: মঞ্জুরুল আহসান,নালিতাবাড়ী :শেরপুরের নালিতাবাড়ীতে এক যুবকের স্ত্রীকে ৭০ বছর বয়সী বৃদ্ধ উত্যক্ত করার কারণে এক রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে নারী সহ উভয় পক্ষের আহত হয়েছে ৪ জন।

এলাকাবাসী ও আহতদের সাথে কথা বলে জানা গেছে, উপজেলার রূপনারায়নকুড়া ইউনিয়নের আয়নাতলী গ্রামের বৃদ্ধ জামাল উদ্দিন(৭০) একই গ্রামের সায়েদুল ইসলাম(৩৫) এর স্ত্রীকে দীর্ঘদিন ধরে উত্যক্ত করে আসছিল। এই বৃদ্ধকে নিয়ে এক পর্যায়ে সায়েদুল ও তার স্ত্রীর মাঝে দাম্পত্য কলহ হয়। তাদের সংসার ভাঙার উপক্রম হয়ে যায়। এমন পরিস্থিতিতে ক্ষিপ্ত হয়ে সায়েদুলের স্ত্রী গত ০৩/১০/১৭ তারিখ মঙ্গলবার ওই বৃদ্ধকে জুতাপেটা করে। এ ঘটনার তিন দিন পর শুক্রবার সন্ধ্যায় আয়নাতলী গ্রামের কানকাটা বাজারে দুদু মিয়ার দোকানে যায় মন্তাজ আলী।

তখন জামাল উদ্দিনের পুত্র দিলদার (৪০), দেলোয়ার হোসেন(৩৮), ছহমুদ্দিন(ছইটকা) এর পুত্র আনোয়ার হোসেন(৪০), আজিজুল হক(৪৫), জালাল উদ্দিনের পুত্র আলম মিয়া(২০) দেশিয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে অতর্কিত হামলা চালায় সায়েদুলের ভাগ্নে মন্তাজ আলী(৩০) এর উপর। পরে উভয় পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হয়ে যায়।

সংঘর্ষে আহত হয় মন্তাজ আলী(৩০) তার পিতা মফিজুল ইসলাম(৫০), কিশোরী বোন রুমানা(১৮)। প্রতিপক্ষের আহত হয় আনোয়ার হোসেন ও দেলোয়ার হোসেন। মফিজুল ইসলাম ও আনোয়ার হোসেন ময়মনসিংহ মেডিক্যাল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। বাকীরা নালিতাবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছে। হাসপাতালে গিয়ে দেখা গেছে, মন্তাজ আলীর পায়ে, হাতে এবং কিশোরী রুমানাকে হাতে ও বুকের পাশে কুপিয়েছে প্রতিপক্ষ। ঘটনার ২ দিন পার হলেও জামাল উদ্দিনের পুত্র দিলদারের হুমকি ও প্রভাবে আহত মন্তাজ আলীর পরিবার মামলা করতে সাহস পাচ্ছেনা বলে মন্তাজ আলী জানান। অপরদিকে জামাল উদ্দিন ও তার পুত্রদের প্রভাব প্রতিপত্তির ভয়ে সায়েদুল ও তার স্ত্রী নিজ বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন বলে মুঠোফোনে সায়েদুল জানান। সায়েদুলের স্ত্রী ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে ফোনে বৃদ্ধ ও তার পুত্রদের শাস্তি দাবী করেন।

এ ব্যাপারে জামাল উদ্দিনের বাড়িতে গেলে তাকে পাওয়া যায়নি। তার পুত্র দেলোয়ার হোসেন তার বাবার এমন কর্মকান্ডের কথা স্বীকার করেন।

এলাকাবাসী জানান, জামাল উদ্দিন পূর্ব থেকেই নারী লোভি। ইতোমধ্যে তিনি ২ বিয়ে করেছেন।
থানায় খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, এ ব্যাপারে সায়েদুলের স্ত্রী সেলিনা বাদী হয়ে গতকাল শনিবার সন্ধ্যায় নালিতাবাড়ী থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন। এসআই সবুর অভিযোগটির কথা স্বীকার করে বলেন আজ মামলাটি রেকর্ড হবে।

Show More

Related Articles