জামায়াতের হরতাল শুরুর চার ঘণ্টা পর বিএনপির সমর্থন

জামায়াতে ইসলামীর ডাকা দেশব্যাপী হরতালে সমর্থন দিয়েছে বিএনপি। সকাল ৬টা থেকে হরতাল শুরুর চার ঘণ্টা পর সাড়ে ১০টার দিকে জামায়াতকে সমর্থন দেওয়ার কথা জানিয়েছে দলটি। বৃহস্পতিবার রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে দলের সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবীর রিজভী সাংবাদিকদের এই কথা জানান।

রিজভী বলেন, ‘বিএনপি নীতিগতভাবে জামায়াতের ডাকা হরতালকে সমর্থন করে।’ তবে এ হরতাল ২০ দলীয় জোট সমর্থন করে কিনা প্রশ্নের জবাবে রিজভী বলেন, ‘এ বিষয়ে এখনও জোটের নেতাদের সঙ্গে কথা হয়নি।’

উল্লেখ্য, গত মঙ্গলবার এক বিবৃতির মাধ্যমে বৃহস্পতিবার (১২ অক্টোবর) সারাদেশে সকাল-সন্ধ্যা হরতালের ডাক দেন দলটির ভারপ্রাপ্ত আমির অধ্যাপক মুজিবুর রহমান। জামায়াতের আমির মকবুল আহমাদ, নায়েবে আমির মিয়া গোলাম পরওয়ার ও সেক্রেটারি জেনারেল ডা. শফিকুর রহমানসহ ৯ জনকে গ্রেফতারের প্রতিবাদে এ হরতালের ডাক দেওয়া হয়। তবে বিএনপি প্রথমে এই কর্মসূচিতে তাদের জোটের শরিক দল জামায়াতকে সমর্থন দেয়নি। বৃহস্পতিবার হরতাল শুরুর পর তারা সমর্থন দেওয়ার কথা জানালো।.

বিএনপির সংবাদ সম্মেলন

তিনি যোগ করেন, ‘সরকার ভয় ও শঙ্কা ছড়িয়ে দিয়ে সারাদেশে রাজত্ব কায়েম করতে চাচ্ছে। এ জন্য জামায়াত ও বিএনপির নেতাদের গ্রেফতার করছে। দেশে এখন কোনও আন্দোলন নেই, নির্বাচন নেই, নেই কোনও কর্মসূচি। তারপরও হঠাৎ আকস্মিকভাবে সরকার তাদের নির্যাতন ও জুলুমের ধারাবাহিকতা প্রতিষ্ঠায় বিএনপিসহ বিরোধীদলের নেতাকর্মীদের গ্রেফতার করছে। রিমান্ডের নামে নির্যাতন করছে। শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতেও সরকারের ইশারায় আমাদের নেতাকর্মীদের গ্রেফতার করা হচ্ছে। নির্বাচন জনগণের ইচ্ছায় নয়, তাদের (সরকারের) ইচ্ছায়ই বেছে নিতে হবে।’

বিএনপির এই নেতা আরও বলেন, ‘রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে চলমান সংলাপের অংশ হিসেবে আগামী ১৫ অক্টোবর বিএনপির সঙ্গে সংলাপ করবে নির্বাচন কমিশন। যেখানে বিএনপির একটি প্রতিনিধিদল অংশ নেবে। সংলাপে বিএনপির পক্ষ থেকে যে সব বিষয় তুলে ধরা হবে তা  আমাদের দলের সিনিয়র নেতারা আলোচনার মাধ্যমে চূড়ান্ত করছেন।’

সংবাদ সম্মেলনে  উপস্থিত ছিলেন- বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা খায়রুল কবির খোকন, সানাউল্লাহ মিয়া, মাসুদ আহমেদ তালুকদার, মুনির হোসেন, আমিনুল ইসলাম প্রমুখ।

আরও দেখুন

সম্পর্কিত খবর